ফেসবুক টেম্পোরারি ব্লক সমস্যার সমাধান

ফেসবুক টেম্পোরারি ব্লক

ফেসবুক টেম্পোরারি ব্লক ইদানিং এই সমস্যাটার মুখে প্রায় অনেকেই পড়েছেন।এই সমস্যাটার সমাধান না করতে পারায় অনেকে অনেকের আইডি একেবারে হারিয়ে ফেলেছেন কিংবা আর কোনো সময় লগইন করতে পারেননি।আজকের এই আর্টিকেলে আমি ফেসবুকের টেম্পোরারি ব্লক এই সমস্যাটা সমাধান দেওয়ার চেষ্টা করবো এবং জানানোর চেষ্টা করবো কোন কোন কারণে ফেসবুক আপনার আইডি টেম্পোরারি ব্লক করে দিয়েছে বা ভবিষ্যতে দিতে পারে।তো আপনার ফেসবুক আইডির স্বাস্থ্য রক্ষার জন্য এই আর্টিকেল টা খুবই গুরুত্বপূর্ণ তাই সম্পন্ন আর্টিকেলটি পড়ার জন্য অনুরোধ করবো।

ফেসবুক টেম্পোরারি ব্লক

বন্ধুরা আমরা সর্বপ্রথম জানবো ফেসবুক আইডি টেম্পোরারি ব্লক হয় কেনো?ফেসবুক আইডি টেম্পোরারি ব্লক হওয়ার একটা না দুইটা না অনেকগুলো কারণ রয়েছে।আমি প্রায় সকল কারণগুলোই আপনাকে জানানোর চেষ্টা করবো যাতে আপনি পরবর্তী সময় আর এই ভুল গুলো না করেন।ফেসবুক আইডি টেম্পোরারি ব্লক হওয়ার অন্যতম একটি কারণ হলো একসাথে অনেক ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠানো।  অর্থাৎ আমরা যখন নতুন ফেসবুক আইডি খুলি তখন দেখা যায় দিনে এক থেকে দুই হাজার ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠাই যার জন্য ফেসবুক আমাদের আইডি টেম্পোরারি ব্লক করে দেয়। তাই আমাদেরকে একদিনে সর্বোচ্চ ত্রিশ থেকে চল্লিশ টার বেশি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠানো উচিত নয়।

 

তারপরে যে কারণে আমাদের ফেসবুক আইডি টেম্পোরারি ব্লক হয় সেটি হলো ফেসবুক পেইজে একাধিক ইনবাইট করা।দেখা যায় আমরা নতুন একটি ফেসবুক পেজ তৈরি করে সাথে সাথে আমাদের ফ্রেন্ড দের আমরা ফেসবুক পেইজে লাইক করার জন্য ইনবাইট পাঠাই। যদি এটা অনেক বেশি পরিমানে হয়ে থাকে ফেসবুক আপনার আইডিকে রোবট বা কোনো মেশিন মনে করে এবং আপনার আইডিটা টেম্পোরারি ব্লক করে দেয়। তাই আমাদের উচিত ফেসবুক পেইজে একসাথে দশ থেকে পনেরো জন কিংবা সর্বোচ্চ বিশ জনের বেশি ইনবাইট না পাঠানো।
তারপর যে কারণে আমাদের ফেসবুক আইডি টেম্পোরারি ব্লক হয় সেটি হলো মানুষকে গালাগালি করা অর্থাৎ আমাদের যদি কোনো সেলিব্রিটি বা অন্য কোনো বন্ধুবান্ধবকে পছন্দ না হয় তাহলে আমরা কমেন্টে গিয়ে অনেক রাগারাগি করি অনেক মন্দ কমেন্ট করি যার ফলে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ আমাদের আইডি টেম্পোরারি ব্লক করে দেয়। তাই আমাদের উচিত কখনোই কারো ফেসবুক পোস্টে খারাপ মন্তব্য না করা।
তারপর যে কারণে আমাদের ফেসবুক আইডি টেম্পোরারি লক হয় সেটি হলো অটো রিয়েক্ট বা ফলোয়ার নেওয়ার কারণে। অনেক সময় আমরা আমাদের ফেসবুক পোস্টে বা আমাদের প্রোফাইল পিকচারে অনেক লাইক, কমেন্ট নিয়ে থাকে বিভিন্ন থার্ডপার্টি ওয়েবসাইট বা অ্যাপসের মাধ্যমে। যা ফেসবুকের কাছে খুবই খারাপ। এবং ফেসবুক আমাদের আইডি টেম্পোরারি লক করে দেয়।
তারপর এবং সর্বশেষ কারণ যেই কারণটিই বলবো সেটি হল ভিপিএন ব্যবহার করে ফেসবুক আইডিতে লগইন করা। আমরা অনেক সময় করি কি একটা ভিপিএন কানেক্ট করি এবং যেকোন ব্রাউজার দিয়ে ফেসবুক আইডিতে লগইন করি।যার ফলে ফেসবুক মনে করে আমাদের আইডিতে অন্য কেউ লগইন করার চেষ্টা করছে তাই ফেসবুক কর্তৃপক্ষ আমাদের আইডিটি টেম্পোরারি লক করে দেয় যাতে অন্য কেউ লগইন করতে না পারে।
আশা করছি উপরে যে বিষয়গুলো উল্লেখ করেছি সেই বিষয়গুলো যদি আপনি ঠিকঠাক মেনে চলেন তাহলে আপনার ফেসবুক আইডি টেম্পোরারি লক হবে না।আর যদি টেম্পোরারি লক হয়ে যায় তাহলে আনলক করে দুই তিনটে উপায় রয়েছে। আপনি সর্বপ্রথম আপনার ফেসবুক আইডিতে লগইন করে নিবেন এবং দেখবেন কন্টিনিউ নামক একটা অপশন রয়েছে। আপনি continue-তে ক্লিক করবেন। তারপর সেখানে দুইটি অপশন পাবেন।প্রথম অপশনটি আপনার
ফ্রেন্ডদের কিছু ছবি দেখাবে আপনাকে ছবি দেখে ফ্রেন্ড এর নাম সিলেক্ট করে দিলে আনলক হয়ে যাবে। দ্বিতীয় অপশনটা হলো আপনাকে আপনার জন্মতারিখ লিখতে হবে। লিখার পর আপনার আইডি আনলক হয়ে যাবে। মনে রাখবেন ফেসবুক সবসময় আপডেট হতে থাকে, যার ফলে আনলকের সিস্টেম এ আরো অপশন বাড়তে পারে কিংবা কমতেও পারে। যারা আর্টিকেলটি শেষ পর্যন্ত পড়েছেন তাদেরকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আপনি যদি আমাদের ওয়েবসাইটের সকল আপডেট পেতে চান তাহলে আপনি চাইলে আমাদের ফেসবুক পেইজ এর সাথে যুক্ত হতে পারেন।

Recent Articles

Related Stories

Leave A Reply

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay on op - Ge the daily news in your inbox